রায়পুরের বামনীতে টাকা দিলে টিকা মিলে

96

নিজস্ব প্রতিবেদক :
লক্ষ্মীপুরের রায়পুরের বামনী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কর্মী সেলিনা দীর্ঘদিন থেকে সাধারণ জনগনের কাছ থেকে শিশু টিকা জন-প্রতি ৫০ টাকা, মাতৃ ভাউচার ২’শ টাকা, কিশোরী টিকা কার্ড ২’শ টাকা হারে আদায় করছেন ।

ইতোপূর্বে বিষয়টি কর্তৃপক্ষ জানার পর কয়েক দফা শো’কচ করা হয়। কিন্তু এতেও টনক নড়েনি সেলিনার। নির্ভয়ে চালিয়ে যাচ্ছেন তার অপকর্ম।

সরেজমিনে জানা যায়, জনৈক কিশোরী বুধবার (১৪ অক্টোবর) সকাল ১০ টায় টিকা দিতে কেন্দ্রে হাজির হয়। যথারীতি টিকা কার্ড পূরণ করে টাকা না দেয়ায় টিকা নেই বলে সাফ জানিয়ে দেয় স্বাস্থ্য কর্মী সেলিনা ।

এ ব্যপারে ভূক্তভোগী জানায়, টিকা কার্ড করার সময়ও তিনি আমার কাছ থেকে টাকা নিয়েছে। আজ আমাকে সারাদিন বসিয়ে রেখেও টাকা না দেওয়ায় টিকা দেননি তিনি। সংবাদকর্মীকে দেখা মাত্রই এলাকায় বসবাসকারী বিভিন্ন লোক জানান,কয়েক বছর ধরে টিকা দেয়ার নাম করে সেলিনা টাকা নিচ্ছে ।

মধ্য সাগরদী জামে মসজিদের কোষাধক্ষ্য হারুনুর রশিদ হাওলাদার জানান, এতবার শো’কজ করার পরও তার কিছুই হয়নি।

রায়পুর প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি আবদুল করিম জানান, তার প্রতিবেশীর কাছ থেকে কিশোরী টিকা কার্ড করতেও টাকা নিয়েছে। চিকিৎসা নিতে আসা অন্যরা জানায়, টিকা কার্ড করতে সেলিনা আপাকে ২’শ টাকা করে দিতে হয়।

অভিযুক্ত সেলিনা সেলিনা বলেন, আমি রিক্সা দিয়ে একজন লোক মারফত রায়পুর থেকে টিকার ঔষধ আনতে হয়। মাতৃভাউচার পাশ করাতে বামনী ইউনিয়ন পরিষদে যেতে হয়। এতে অনেক টাকা খরচ হওয়ায় আমি টাকা আদায় করছি। বিষয়টি তিনি প্রত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ না করার জন্যও সংবাদ কর্মীকে অনুরোধ জানান।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা জাকির হোসেন জানান, কোন ধরনের টিকা দিতে টাকা নেয়ার প্রশ্নই আসেনা। সেলিনার বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

দেশ জার্নাল/আরজে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here