বৃহস্পতিবার , ৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  1. অনুসন্ধান
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আর্ন্তজাতিক
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গণমাধ্যম
  9. জাতীয়
  10. ধর্ম
  11. নারী ও শিশু
  12. প্রবাস
  13. ফিচার
  14. বিনোদন
  15. মতামত

লক্ষ্মীপুরে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের আশার আলো দেখাচ্ছে দ্য ফ্যালকন্স

প্রতিবেদক
দেশ জার্নাল
সেপ্টেম্বর ৯, ২০২১ ১২:১৮ অপরাহ্ণ
Desh Journal

 

মোঃ জিহাদ হোসেন রাহাত
লক্ষীপুর প্রতিনিধি:

লক্ষ্মীপুরে দৃষ্টি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের নিয়ে ইসলামিক সঙ্গীত ও কুরআন তেলাওয়াত প্রতিযোগীতার সম্পন্ন। আবদুল গণি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী ব্রেইল হাফিজিয়া ও ফোরকানিয়া মাদ্রাসায় এই আয়োজন করে কালচারাল ক্লাসিসিস্ট এর লক্ষ্মীপুর জেলা শাখা -দ্যা ফ্যালকন্স ।

পরিসংখ্যান বলছে , দেশের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৭ শতাংশ মানুষ প্রতিবন্ধী। তবে এর সঠিক হিসাব মেলা ভার। আবার এই হারের একটা বিরাট অংশ দৃষ্টি প্রতিবন্ধী। অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় পারিবারিক ও সামাজিক সম্মানহানির ভয়ে অনেক মা-বাবা নিজের সন্তানকে বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন ব্যক্তির তালিকাভুক্ত করতে চান না। আমাদের সমাজে প্রতিবন্ধীরা অবহেলা-অনাদরে কাটায় তাদের জীবন। দেশের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন সংগঠন কাজ করলেও দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের লক্ষ্মীপুরে আশার আলো দেখাচ্ছে দ্য ফ্যালকন্স নামের এই সংগঠন।

পরিবার থেকে শুরু করে আত্মীয়-পরিজন, প্রতিবেশী সবাই তাদের খাটো করে দেখে থাকেন। সমাজের বাকি সদস্যদের মতো স্বাভাবিক জীবনযাপনের কথা থাকলেও তারা সব অধিকার থেকে বঞ্চিত। জীবনের প্রতিটি ধাপে তাদের অবহেলার চিত্র ফুলে ওঠে। তারা যদি নিম্নআয়ের বা নারী হয়ে থাকেন, তাহলে তাদের সারাজীবন ভোগ করতে হয় সীমাহীন দুর্ভোগ।

শিক্ষাক্ষেত্র, কর্মক্ষেত্র, পারিবারিক অনুষ্ঠান থেকে শুরু করে সব ক্ষেত্রেই তারা হয় বৈষম্যের শিকার। এ বৈষম্যই তাদের সমাজ থেকে ধীরে ধীরে দূরে ঠেলে দেয়। এর ফলে তারা সমাজের বাকি দশজনের মতো স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারে না। সাংবিধানিকভাবে সমাজের বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন ব্যক্তিদের অধিকারের কথা বলা হলেও বাস্তবে এর প্রয়োগ অনেক কম।

দেশে প্রতিবন্ধীদের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের রয়েছে অপ্রতুলতা, তাদের জন্য কর্মক্ষেত্র সীমিত, রাস্তায় চলাচলের জন্য নেই কোনো বিশেষ ব্যবস্থা, কর্মক্ষেত্রেও নেই বিশেষ সুযোগ-সুবিধা, স্বাস্থ্য খাতে তারা নানাভাবে অবহেলার শিকার। জাতিসংঘের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী, স্বাভাবিক শিশুর তুলনায় বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুদের অন্যায়ের শিকার হওয়ার আশঙ্কা চারগুণ বেশি থাকে। অথচ প্রতিবন্ধিতা মানুষের জীবনে অবিচ্ছেদ্য অংশ। যে কেউ এর শিকার হতে পারে। আর স্বাভাবিকভাবে জীবনযাপন করতে পারা তাদের মৌলিক অধিকার।

সমাজের এ বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন মানুষদের জীবনমান ফিরিয়ে দেয়ার জন্য প্রয়োজন দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন। তাদের প্রতিবন্ধী হিসেবে নয়, দেখতে হবে মানুষ হিসেবে। পরিবার থেকে শুরু করে সমাজের প্রতিটি ক্ষেত্রে তাদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করতে হবে। তাদের জন্য আলাদা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কর্মক্ষেত্র তৈরি করতে হবে। যে যেই কাজে পারদর্শী, তাকে সেই কাজে লাগাতে হবে।

ক্ষেত্রবিশেষে দেখা যায়, অনেকের শারীরিক বিভিন্ন সমস্যা টেকনোলজির সাহায্যে সমাধান করা সম্ভব; তাদের সেসব অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। মোটকথা, তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী সব ধরনের সহায়তা প্রদান করা সমাজ তথা রাষ্ট্রের অবশ্য পালনীয় দায়িত্ব। আর এসব দায়িত্ব পালন করতে পারলে এবং তাদের জন্য সুযোগ তৈরি করে দিতে পারলে তারা সমাজে বোঝা নয়, বরং সম্পদে পরিণত হবে এবং দেশের অর্থনীতিতে রাখতে পারবে বিশেষ অবদান।

দৃষ্টি প্রতিবন্ধী বা অন্য কোনো শারীরিক সমস্যাগ্রস্ত শিশু-কিশোর’রা সমাজের বোঝা নয় এমন চিন্তাধারা নিয়ে লক্ষ্মীপুরে কাজ করছে দ্য ফ্যালকন্স। দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের নিয়ে ফ্যালকন্স পরিবার আয়োজন পরে কোরআন প্রতিযোগিতার। প্রতিযোগিতা শেষে তাদের মধ্যে মধ্যাহ্নভোজের আয়োজন করে এই সংগঠন । এ সময় উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জেলা কালচারাল ক্লাসিসিস্ট এর ডেপুটি হেড কো-অর্ডিনেটর তাহমিদ নূর মাহমুদ,এসোসিয়েট ডিপার্টমেন্ট অফিস্যার শাফায়াত মাহমুদ,ইনিশিয়াল ম্যানেজমেন্ট অফিস্যার আল হাসান , ইনিশিয়াল ম্যানেজমেন্ট অফিস্যার নাঈমুল ইসলাম সহ অতিথিবৃন্দ।

দেশ জার্নাল /এস.এম

আপনার মন্তব্য লিখুন

সর্বশেষ - আইন-আদালত