লক্ষ্মীপুরে আইনজীবী মুনছুরের বিরুদ্ধে ১০ লক্ষ টাকা আত্মসাতের অভিযোগ

69

নিজস্ব প্রতিবেদক:
লক্ষ্মীপুরে আইনজীবী মুনছুর আহম্মদ দুলালসহ দুইজনের বিরুদ্ধে আদালতে ১০ লাখ ৫৫ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বুধবার (১১ নভেম্বর) দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলী আদালতে (সদর) ভূক্তভোগী নুরনবী এ অভিযোগটি দায়ের করেন।

 আদালত সূত্র জানায়, অভিযোগটি আদালতের বিচারক জুয়েল দেব আমলে নিয়েছেন। ঘটনাটি তদন্ত করে ‘ফার্স্ট ইনফরমেশ রিপোটর্’ (এফআইআর) দাখিলের জন্য সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে (ওসি) নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

 অন্য অভিযুক্ত হলেন রায়পুর উপজেলার শিবপুর গ্রামের নুর মোহাম্মদ ঢালীর ছেলে চৌকিদার আনসার উল্যা।

 এরআগে গত ১৯ জুলাই নুরনবী ল আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বরাবর মুনছুর আহম্মদ দুলালের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে ১৮ আগস্ট সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান অভিযুক্ত আইনজীবি দুলালের উপস্থিতিতে নুরনবীর সাক্ষ্য গ্রহণ করেন। এসময় তিনি অভিযুক্তকে নুরনবীর টাকা ফেরত দিতে বলেন। পরে আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদকের নির্দেশনায় ১ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সচিবের বরাবর ডাকযোগে দুলালের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ পাঠান নুরনবী।

 অভিযোগ সূত্র জানায়, নুর নবী রায়পুর উপজেলার বামনী ইউনিয়নের বামনী গ্রামের বাসিন্দা ও দুবাই প্রবাসী ছিলেন। তিনি ২০১৪ সালে দেশে আসেন। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে নুরনবীর বিরুদ্ধে আইনজীবি দুলালকে দিয়ে চৌকিদার আনসার উল্যা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়। বরিশাল, কুমিল্লার চান্দিনা ও তেজগাঁও থানায় অস্ত্র আইনে, হত্যা-ডাকাতিসহ তিনটি মামলার কথা বলে আইনজীবি ও চৌকিদার ১০ লাখ ৫৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়। মামলা নিস্পত্তির কথা বলে আইনজীবী ২০১৭ সালের ৩ ডিসেম্বর ৩ লাখ ৫০ হাজার , ২০১৮ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি ৩ লাখ ৩০ হাজার, ৪ মার্চ ৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা নেয়। এছাড়া জমি বন্টনের মামলার রায় করে দেওয়ার কথা বলে ৫০ হাজার টাকা নেওয়া হয়।

 এদিকে এখনো পর্যন্ত নুরনবীকে কোন মামলার নকল, রায় কিংবা জামিনের কপিও দেখাতে পারেননি আইনজীবী। প্রতারণার মাধ্যমে ১০ লাখ ৫৫ হাজার টাকা দুলাল ও আনসার উল্যা আত্মসাত করেছে বলে জানিয়েছে নুরনবী। টাকাগুলো উদ্ধারে আদালতের স্বরণাপন্ন হয়েছেন বলে জানান নুরনবী।

সূত্র : মোহনা নিউজ ও বার্তা ২৪

দেশ জার্নাল/আরজে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here