ভার্চুয়াল আদালত’ বিচারিক সংকট কাটাতে ভূমিকা রাখবে

4

নিজস্ব প্রতিবেদক :

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আদালত চালুর সিদ্ধান্তকে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন আইনজীবীরা। তারা বলছেন, দেশে বিচারিক ও সাংবিধানিক সংকট কাটাতে ভূমিকা রাখবে অনলাইন আদালত। তবে বিচারক, আইনজীবী ও বিচারবিভাগের কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ না দিয়ে চালু করা হলে সুফল মিলবে না।
ভারতের গুজরাট হাইকোর্টের ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে চলছে বিচারকাজ। বাংলাদেশে অনলাইন কোর্ট চালুর ক্ষেত্রে আইনি সীমাবদ্ধতা থাকায় করোনার পরিস্থিতির কারণে আদালতের বন্ধ দুয়ার খুলতে অনলাইনে কোর্ট চালুর বিধানে অনুমোদন দেয়া হয়েছে।
ভার্চুয়াল কোর্ট চালুতে প্রযুক্তিগত বিষয়ে কাজ শুরু করেছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। এরইমধ্যে অনলাইনে নিবন্ধন করেছেন অনেক আইনজীবী। দেরিতে হলেও এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন তারা।
সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবি খুরশীদ আদালত ছাড়া বাংলাদেশকে পুরো অন্ধকার মনে হচ্ছিল।
ব্যারিস্টার আতিক বলেন, জটিল বিষয়গুলো ছাড়া আপাতত প্রয়োজনীয় কিছু জিনিস এই কোর্টের মাধ্যমে করা হয়, তাহলে ন্যায় বিচার হবে। 
অনলাইনে কোর্ট চালুর আগে বিচারক, আইনজীবী ও কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ না দিলে সুফল মিলবে না বলে মনে করেন আইনজীবীরা।
রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীরা মনে করেন, এতে বিচারপ্রার্থীরা সুফল পাবে, সংকট কাটবে বিচারাঙ্গণের।

করোনা ভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের সব আদালত। ফলে বন্ধ রয়েছে সাংবিধানিক ও আইনি অধিকার লাভের সব পথ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here