রবিবার , ৫ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ
  1. অনুসন্ধান
  2. অন্যান্য
  3. অর্থনীতি
  4. আইন-আদালত
  5. আর্ন্তজাতিক
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গণমাধ্যম
  9. জাতীয়
  10. ধর্ম
  11. নারী ও শিশু
  12. প্রবাস
  13. ফিচার
  14. বিনোদন
  15. মতামত

বাঁচতে চায় শিশু শাহাদাত !

প্রতিবেদক
দেশ জার্নাল
সেপ্টেম্বর ৫, ২০২১ ৬:২৭ অপরাহ্ণ
Desh Journal

 

তাবারক হোসেন আজাদ

খেলাধুলা, ছোটাছুটি আর হইহুল্লোড়ে চারদিক মাতিয়ে রাখতো শিশুটি। মা-বাবা, ভাইসহ প্রতিবেশীদের সঙ্গে তার সখ্য একটু বেশিই। লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে শাহাদাত হোসেন (৯) নামের এই শিশুটি এখন জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে। দুটি কিডনি নষ্ট হয়ে আক্রান্ত চর বামনী গ্রামের শিশুটির চোখে-মুখে বাঁচার আকুতি। শিশুটি বর্তমানে গত চারদিন ধরে শিশু হাসপাতালের এক নাম্বার ওয়ার্ডের ৩৯ নাম্বার সিটে চিকিৎসারত।

পরিবার জানায়, শাহাদাতের বাবা মাসুদ আলম দরিদ্র দিনমজুর। স্ত্রী ও দুই ছেলে নিয়ে কোনও রকম সংসার চালান। দুই ছেলে বড় হবে, এক সময় সংসারের হাল ধরবে—এমন স্বপ্ন নিয়ে তিনি তাদের লেখাপড়া শেখাচ্ছিলেন। কিন্তু শাহাদাতের বয়স যখন ২ বছর, তখন তার জ্বর হয়ে ফুলে যায়। অনেক চিকিৎসা দেওয়া হলেও জ্বর ভালো হয় না।

পরে তাকে লক্ষ্মীপুরের একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে দুই কিডনি অকেজো ধরা পড়ে। চিকিৎসকরা তাকে দ্রুত ঢাকা শিশু হাসপাতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন। পরে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসা শেষে কিছুটা ভালো হলে তাকে গ্রামের বাড়ি আনা হয়। করোনার কারনে তার চিকিৎসা কোনরকম চলছিলো। গত চারদিন আগে তার সমস্যা বেশি দেখা দিলে তাকে শ্যামলী শিশু হাসপাতালের চিকিৎসক ডাক্তার মোঃ হানিফ ও শিরিনা আফরোজার তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। দুই চিকিৎসকই পুনরায় পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানান, দেশে তার চিকিৎসা নেই।

শিশু শাহাদাত বলে, ‘আমি বাঁচতে চাই। বন্ধুদের সাথে খেলতে চাই।’ শিশুটি যখন কথা বলছিল, তখন বাবা-মাসহ স্বজনরা কান্নায় ভেঙে পড়েন।

শিশুটির বাবা মোঃ মাসুদ বলেন, ‘আমরা ভাবছি, শাহাদাতকে ভারতে নিয়ে চিকিৎসা করাবো, কিন্তু এতদিন দেশের মধ্যে চিকিৎসা করাতে গিয়েই ধার-দেনাসহ ভিটে-মাটি সম্ভাব্য সব টাকার উৎস শেষ হয়ে গেছে। বাইরে চিকিৎসা করাতে গেলে প্রায় ২০ লাখ টাকা প্রয়োজন। এখন কীভাবে কী করবো! কিন্তু আমার ছেলেটা বাঁচতে চায়। পুনরায় স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে চায়। ছেলেকে বাঁচাতে সরকারসহ বিত্তবানদের এগিয়ে আসার অনুরোধ করছি।’

শাহাদাতের বাবার বিকাশ পারসনাল নাম্বার: ০১৮৫১৮৫৫৮১। এই নম্বরে শিশুটির জন্য মানবিক সাহায্য পাঠানো যাবে। অথবা সঞ্চয়ী হিসাব নম্বর ১০০১০৪৬৪৯, রাখালিয়া শাখা, সোনালি ব্যাংক এবং ৩৩০১৬৯, রায়পুর শাখা, ইসলামি ব্যাংক, বাংলাদেশ। এই নম্বরেও টাকা পাঠানো যাবে।

দেশ জার্নাল/ এসএ

আপনার মন্তব্য লিখুন

সর্বশেষ - আইন-আদালত

আপনার জন্য নির্বাচিত

জামালপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে কৃষক নিহত

রায়পুরের ৬নং ইউপির  নৌকার প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী রেখা’র নির্বাচনী জনসভা 

বকশীগঞ্জে অগ্নিকান্ডে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ইউএনও’র সহায়তা

এলপি গ্যাসের দাম বেড়ে ১০৩৩ টাকা হয়েছে।

লক্ষ্মীপুরে দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের আশার আলো দেখাচ্ছে দ্য ফ্যালকন্স

বঙ্গবন্ধুর বিচক্ষণতা, যোগ্যতা, দক্ষতায় বাঙালি জাতি স্বাধীনতা পেয়েছে ; জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

করোনায় চাকরি হারিয়ে সফল উদ্যোক্তা হলেন নাঈম

নিবন্ধিত পত্রিকা ৩১৯৫, ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সংখ্যা ১০৩টি

বিয়ে করলেন অভিনেতা নিলয় আলমগীর

যমুনা সার কারখানার ছাটাইকৃত শ্রমিকদের চাকুরীতে পুর্নবহালের দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি