কানাডায় মুসলিম পরিবারের ৪ জনকে হত্যার বিচার শুরু

14

কানাডায় ট্রাক উঠিয়ে দিয়ে একটি মুসলিম পরিবারের চারজনকে হত্যার ঘটনাকে সন্ত্রাসী হামলা বলে অভিহিত করেছেন দেশটির আদালত। সন্ত্রাসি আইনে বিচার শুরুর পক্ষে রায় দেন আদালত।

বিবিসির প্রতিবেদনে জানা যায়, সোমবার কানাডার অ্যাটর্নি জেনারেল হত্যাকারী ২০ বছর বয়সী নাথানিয়াল ভেল্টম্যানের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসি আইনে বিচার শুরুর পক্ষে রায় দেন। ফলে এখন থেকে নাথানিয়ালের বিচারকাজ পরিচালনা হবে কানাডার প্রচলিত সন্ত্রাসী হামলা আইনে।

এ বিবৃতিতে কানাডার পুলিশ জানায়, নাথানিয়াল পূর্বপরিকল্পিতভাবে এ হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছিলেন। পরিবারটি মুসলিম বলে ঘৃণা থেকে প্ররোচিত হয়ে এ হামলাটি চালানো হয়েছে। ইসলামবিদ্বেষই হামলার এমকাত্র উদ্দেশ্য বলে জানায় পুলিশ।

গত ৬ জুন কানাডার অন্টারিওর লন্ডন শহরে একটি মুসলিম পরিবারের ওপর দিয়ে ট্রাক চালিয়ে দেয় নাথানিয়াল ভেল্টম্যান। পরে ওই পরিবারের ৫ সদস্যের মধ্যে ৪ জনই ঘটনাস্থলে নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে দুইজন নারী। এদের বয়স যথাক্রমে ৭৪ ও ৪৪ বছর। ওই দুর্ঘটনায় ১৫ বছরের এক কিশোরী এবং ৪৬ বছর বয়সী এক ব্যক্তিও নিহত হয়েছেন। তবে দুর্ঘটনা থেকে ভাগ্যক্রমে বেঁচে গেছে ৯ বছর বয়সী এক শিশু।

পরে এ ঘটনায় উদ্বেগ জানিয়েছেন কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো। তিনি বলেন, কট্টর ডানপন্থী বর্ণবাদী গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে যেতে হবে। কানাডা থেকে এ ধরনের কর্মকাণ্ড বন্ধ করতে হবে।

সোমবার আদালতে শুনানির সময় ২০ বছর বয়সী নাথানিয়াল ভেল্টম্যানেকে ভার্চুয়ালি হাজির করা হয়। আগামী ২১ জুন তাকে আবার আদালতে হাজির করা হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here