উপনির্বাচনে পাপুলের আসনে অ্যাডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন বিজয়ী।

 

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ
লক্ষ্মীপুর-২ আসনে (রায়পুর ও সদরের একাংশ) আওয়ামী লীগ মনোনীত অ্যাডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন।

কাজী শহিদ ইসলাম পাপুল দণ্ডিত হওয়ায় লক্ষ্মীপুর-২ আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়।
সোমবার সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়; একটানা চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

নির্বাচনে অ্যাডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন পেয়েছেন ১ লাখ ২২ হাজার ৫৫৭ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী জাতীয় পার্টির প্রার্থী শেখ মো. ফায়িজ উল্যা শিপন পেয়েছেন ১ হাজার ৮৬৮ ভোট। জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা দুলাল তালুকদার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে সকাল পৌনে ৭টার দিকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি মাথায় নিয়ে ভোটাররা কেন্দ্রে উপস্থিত হন।

তাছাড়া এই নির্বাচনে অংশ নেয়নি বিএনপি ও অন্যান্য শরিক দল।

কেন্দ্রে নিরাপত্তায় র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি ও আনসারের প্রায় ৫০ হাজার সদস্য মাঠে নামানো হয়েছে। এ ছাড়া রয়েছেন জুডিশিয়াল ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট।

এদিকে ইসি জানিয়েছে, কুয়েতের আদালতে কাজী শহিদ ইসলাম পাপুল দণ্ডিত হওয়ায় লক্ষ্মীপুর-২ আসন শূন্য ঘোষণা করা হয়।

১৯ ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে গঠিত এ আসনে ভোটার সংখ্যা চার লাখ দুই ৯২৩ জন। কেন্দ্র ছিল ১৩৬ এবং ভোটকক্ষ ৯৭৯টি। এ আসনের নির্বাচনে সাধারণ ভোটকেন্দ্রের পাহারায় ১৭-৮ জন এবং ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্রে ১৮-১৯ জন মোতায়েন ছিল।

আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় এই আসনে পুলিশের ২০টি মোবাইল ও ১০টি স্ট্রাইকিং ফোর্স, র‌্যাব ১০টি টিম ও বিজিবির ১০ প্লাটুন সদস্য মাঠে ছিল। এ ছাড়া ২২ জন নির্বাহী ও দুজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটও নিয়োগ দেওয়া হয়।
ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) এ আসনে ভোটগ্রহণ করা হয়।