পাপুলের আসনে আ’লীগের নির্বাচনী কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক বিএনপি নেতা সোহেল !

377

নিজস্ব প্রতিবেদক:

লক্ষ্মীপুর-২ আসনে (রায়পুর) উপ-নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দের মাধ্যমেই শুরু হবে প্রচার প্রচারণা। এরমধ্যেই আওয়ামী লীগ বিভিন্ন ইউনিয়নে নির্বাচন পরিচালনা কমিটি গঠন করা হচ্ছে । তবে দালাল বাজার ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির যুগ্ন-আহবায়ক হিসেবে বিএনপি নেতা কামরুজ্জামান সোহেলের নাম রয়েছে। এনিয়ে আয়োজিত সভায় সোহেল উপস্থিত থেকে নৌকার প্রার্থীর ব্যয়ের জন্য ৩ লাখ টাকা দেওয়ার ঘোষণাও দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) দুপুরে বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন দালালবাজার ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব নুরুজ্জামান মাষ্টার।

বুধবার (২৪ মার্চ) বিকেলে সদর উপজেলার দালাল বাজার ডিগ্রি কলেজে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এডভোকেট নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন নির্বাচন পরিচালনা কমিটির বৈঠক ডাকেন। সেখানে উপস্থিত থেকে বিএনপি নেতা সোহেল নির্বাচনের জন্য ৩ লাখ টাকা ব্যয় করবেন বলে ঘোষণা দেন।

দালাল বাজার ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহবায়ক নুরনবী চৌধুরী, যুগ্ম-আহবায়ক কামরুজ্জামান সোহেল, আওয়ামী লীগ নেতা এডভোকেট হুমায়ুন হাওলাদার, মো. বাকের ও সদস্য সচিব নুরুজ্জামান মাস্টারকে করা হয়। এর মধ্যে সোহেল সদর উপজেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও দালাল বাজার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। সোহেল জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাহাব উদ্দিন সাবুর ভাগিনা।

এ বিষয়ে বিএনপি নেতা কামরুজ্জামান সোহেল বলেন, চেয়ারম্যান হিসেবে আমাকে দাওয়াত দিয়েছে। এজন্যই ওই বৈঠকে যাওয়া। অন্যদল বললেও দায়িত্ব থেকে আমি যেতাম। আওয়ামী লীগের নির্বাচনী কমিটিতে চেয়ারম্যান হিসেবে আমাকে মুখে মুখে রেখেছে। ৩ লাখ টাকা দেয়ার বিষয়টি আমি বলিনি। সভায় আওয়ামী লীগের নেতারা সবাইকে নির্বাচনী খরচের জন্য টাকা দিতে বলেছে। সে সূত্রে তারাই আমাকে বলেছে ৩ লাখ টাকা দিতে। আমি এতো টাকা পাবো কোথায়।

জানা গেছে, কুয়েতে দণ্ডপ্রাপ্ত কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলের লক্ষ্মীপুর-২ আসনে ১১ এপ্রিল উপ-নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এদিন একটি পৌরসভাসহ রায়পুর ও সদর উপজেলার ১৯ টি ইউনিয়নের ৪ লাখ ২ হাজার ৯৬৩ জন ভোটার ইভিএমের মাধ্যমে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। এতে দলীয় প্রতীকে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরউদ্দিন চৌধুরী নয়ন ও জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় সদস্য ফায়িজ উল্যাহ শিপন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) প্রতীক বরাদ্দের পর প্রচার প্রচারণা শুরু হবে। ইতিমধ্যে প্রচারণার সকল প্রস্তুতিও সম্পন্ন করেছেন প্রার্থীরা।

২৪ মার্চ প্রত্যাহারের শেষদিন আরেক প্রার্থী বাংলাদেশ কংগ্রেসের ঢাকা মহানগরের আহবায়ক আবুল কালাম আজাদ নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন।

দেশ জার্নাল/আ.কা.